বরিশাল, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং,৯ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ সর্বশেষ আপডেট: ৩ ঘন্টা আগে
শিরোনাম

লাইভ ডেস্ক

বেলকলিতে ফুটল ফুল

জানুয়ারি ৫, ২০১৮ ৩:৫৩ অপরাহ্ণ

শীতের ভোর। বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের পুরো এলাকায় ধোঁয়া ধোঁয়া কুয়াশা। হিম হিম এই শীতের সকালে হাতিশাল থেকে ছড়াল এক গরম খবর। বেলকলি মা হয়েছে। দিনের নতুন সূর্যের সঙ্গে আলো ছড়াল সাফারি পার্কের নতুন এক খুদে সদস্য।

তিন মাহুত কিরণ চাকমা, কোকিল চাকমা ও উদয় চাকমার মুখে হাসি। হস্তিনী বেলকলিকে নিয়ে রাতভর নির্ঘুম তাঁরা। ক্লান্তি আসার সুযোগ নেই। এখন ভালোয় ভালোয় সে শাবকের জন্ম দেওয়ায় তাঁদের সব কষ্ট সার্থক। শুক্রবার সকাল সাড়ে আটটায় এসেছে এই নতুন অতিথি। ৩০ বছর বয়সী বেলকলি জন্ম দিয়েছে কন্যা শাবকের। ওজন আনুমানিক সাত কেজি।

বেলকলি ও তার কন্যাকে ঘিরে চারপাশ আজ বেশ আনন্দময়। মা আর শাবকের দিকে আজ সবার একটু বেশি নজর। তবে বেলকলি যেন আগের চেয়ে বেশি সতর্ক হয়ে গেছে। সন্তানকে পেটের নিচে আড়াল করে রেখেছে। গভীর মমতায় দুধ খাওয়াচ্ছে। ধারে-কাছে কেউ গেলে মেজাজ দেখাচ্ছে। যেনবা সন্তান ছাড়া আর সবাই তার শত্রু!

মাত্র পাঁচ মাসের ব্যবধানে গাজীপুরের এই সাফারি পার্কের আবদ্ধ পরিবেশে দ্বিতীয়বারের মতো হস্তিশাবক জন্মানোর ঘটনা ঘটল।

এর আগে ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে মুক্তিরানী নামের আরেক হস্তিনী একটি কন্যা শাবকের জন্ম দেয়। বাচ্চা হাতিটির নাম রাখা হয়েছে বন মাধুরী।

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেন বলেন, আজ সকালে বেলকলি শাবকের জন্ম দিয়েছে। নতুন হাতিকে নিয়ে সাফারি পার্কে হাতির সংখ্যা এখন আটটি।

হাতির বাচ্চাটি জন্মের সময় খুব কাছে ছিলেন সাফারি পার্কের বন্য প্রাণী পরিদর্শক আনিসুর রহমান। তিনি বলেন, বেলকলি এবারই প্রথম শাবকের জন্ম দিয়েছে। এই হাতিটি মুক্তি রানীর মতো মোটাসোটা নয়। একটু ছিপছিপে। তাই বেলকলি যে গর্ভবতী, সেটি শুরুতে বোঝা যায়নি। তবে বিষয়টি বোঝার পর তিন মাস আগে থেকে পার্কের হাতির ডেরায় আলাদা করে রাখা হয় বেলকলিকে।

সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সন্তান জন্ম দিয়ে বেশ মেজাজ করছে বেলকলি। পেটের নিচে আড়াল করে রাখছে মেয়েকে। আপাতত এক বছর মায়ের বুকের দুধই ওর একমাত্র খাবার। বাচ্চাটির দুধের পরিমাণে যেন ঘাটতি না হয়, সে জন্য বেলকলির খাবারের পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে আছে জাউভাত, আখ, ছোলা, মিষ্টি কুমড়া, গাজর, ভুট্টা, ঘাস, কলাগাছ।

Facebook Comments

পাঠকের মতামত:

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য
TECHNOLOGY: SPIDYSOFT IT GROUP